আজ ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

আপাতত বাণিজ্য মেলা স্থগিত

অনলাইন ডেস্ক: বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টার বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টার
ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার (ডিআইটিএফ) আয়োজন আপাতত স্থগিত করা হয়েছে। মেলা হলে মানুষের সমাগম বেশি হবে এবং করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়বে—এমন বিবেচনা রেখেই এ সিদ্ধান্তটি নেওয়া হয়েছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ঢাকার অদূরে পূর্বাচলে নবনির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে এই মেলা করার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছিল। মেলা আয়োজক রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) থেকে এক সপ্তাহ আগেও বলা হয়েছিল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ১৭ মার্চ এবারের মেলা শুরু হবে। একই দিন আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী কেন্দ্রটির উদ্বোধন করা হবে বলেও জানানো হয়েছিল।

প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা ঢাকার পূর্বাচলে করার চিন্তা করা হয়েছিল। অংশ নিতে বিভিন্ন দেশে চিঠি পাঠানোর প্রস্তুতিও নেয় ইপিবি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মেলা আয়োজনের ব্যাপারেই সরকারের শীর্ষ মহলের সায় মেলেনি।
মেলা আয়োজনের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের যে অনুমতি চাওয়া হয়েছিল, সেখান থেকে ইতিবাচক সাড়া পাওয়া যায়নি বলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।
জানতে চাইলে বাণিজ্যসচিব মো. জাফর উদ্দীন আজ রাতে মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, ‘বলা যায় যে আপাতত স্থগিত। তবে আগামীকাল দুপুরে চূড়ান্ত কথা বলা যাবে।’

ইপিবি সূত্রে জানা গেছে, পূর্বাচলে ২০ একর জমির ওপর বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারের নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে। সেখানে ৯ বর্গফুট আয়তনের ৮০০টি স্টল রয়েছে।

২০ একর জমির ওপর ২০১৭ সালের অক্টোবরে প্রদর্শনী কেন্দ্রের নির্মাণকাজ শুরু হয়। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে ৬২৫ কোটি ৭০ লাখ টাকা অনুদান হিসেবে দেয় চীন সরকার। জমি বাবদ সরকার দেয় ১৭০ কোটি ১৩ লাখ টাকা। প্রদর্শনী কেন্দ্রের নির্মাণকাজ করেছে চীনা কোম্পানি।তথ্য সূত্র: প্রথম আলো

মানব চেতনা /এমআর

Facebook Comments Box

Comments are closed.

     More News Of This Category