আজ ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৩শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

কিশোরগঞ্জ বিসিক শিল্পনগরী ইন্ডাস্ট্রিয়াল এরিয়া কিছু প্রতিবন্ধকতায় উদ্যোক্তারা পিছিয়ে

মামুনুর রশিদ: বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনে (বিসিক) শিল্প নগরী কিশোরগঞ্জ স্থাপন থেকে কিছু প্রতিবন্ধকতায় জর্জরিত যা উদ্যোগক্তাদের চরম ভোগান্তিতে ফেলেছে। ২০১২সন থেকে গ্যাস সংযোগ দিতে পারছেন না নতুন কোম্পানির উদ্যোক্তাগণ বলে অভিযোগ করেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ইন্ডাস্ট্রিয়াল এরিয়া বিসিকের কিছু প্রয়োজন আছে যেমন কর্মী দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন, বজ্র দূষণ রোধে প্রকল্প বাস্তবায়ন, জেলার কাঁচা মালের প্রাপ্যতার উপর ভিত্তি করে শাক-সবজি ও ফলজ সংরক্ষণের জন্য সরকারি উদ্যোগে হিমাগার নির্মাণ, একটি নামাজ ঘর নির্মাণের বিশেষ প্রয়োজন বলে মনে করেন ইন্ডাস্ট্রিয়াল এরিয়ার কর্মরত কর্মকর্তারা।

প্লট ক্যাটাগরি

কিশোরগঞ্জ বিসিক শিল্পনগরীতে এবিএস ক্যাটাগরিতে মোট প্লটের সংখ্যা ১৫০টি যার মধ্যে কারখানা নির্মিত ৩৩টি উৎপাদন করছে। ইতিমধ্যে উৎপাদনযোগ্য ৩টি কারখানা প্রস্তুত করেছে মালিক পক্ষ বলে জানা যায়, ও নির্মানাধীন আছে ১০টি এবং নির্মাণের অপেক্ষায় ১২টি কোম্পানি তবে সরকারের সঠিক তদারকি ও পর্যাপ্ত সুযোগ সুবিধা না থাকায় প্লট বুকিং দাতারা ব্যাংক লোন নিয়ে অন্যত্র বিনোয়গ করছে বলে তথ্য পাওয়া যায়।

উৎপাদিত কোম্পানি

উৎপাদনরত কয়েকটি কোম্পানির মধ্যে ভালো অবস্থানে বার্গো ফ্যাশন এমএম খান ফুডস, মানুরী টেক্সটাইল, শাহজাহান মেটাল, পূবালী ফ্লাওয়ার মিল, মার্কো বিডি, মেরাজ টেক্সটাইল, ইফাজ ডাইং বিচিং, আজহার ব্রেড, মুনমুন বেকারি ইত্যাদি। কিশোরগঞ্জের বিসিক শিল্পনগরীতে বেকারি সামগ্রী ফুড আইটেমে কয়েকটি কারখানা কিশোরগঞ্জ জেলার চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন জেলায় রপ্তানি করছে বেকারির ফুড আইটেম।
কিশোরগঞ্জে বিসিক শিল্পনগরী শুরু হয় ফুড বেকারির উৎপাদিত আইটেম দিয়ে কয়েকটি কারখানায় উৎপাদিত ফুডে জেলা শহরসহ বিভিন্ন উপজেলায় রপ্তানি করছে তারমধ্যে এম এম খান ফুট তাদের নিজস্ব শো-রুম করেছে জেলা শহরে প্রায় ৫টি যা শহরের উচ্চবিত্ত ভদ্রপরিবারের মন জয় করতে ইতিমধ্যেই সফল হয়েছে।
পিছিয়ে নেই অন্য উদ্যোক্তারাও তবে এ ক্যাটারিতে এমএম খান ফুডস। অন্য কারখানায় তৈরি ফুট আইটেমের মধ্যে এশিয়া ব্রেড, মুনমুন বেকারি, রতন ফুডস, আজহার ব্রেড মুটামুটি সারা জাগিয়ে তুলছে। বিসিক শিল্পনগরীর কর্মকর্তা এস এম আসলাম কবির জানান কোম্পানির মালিকের অতীব প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা প্রহরী নিয়োগ দেওয়ার প্রয়োজন বলে জানান।
পূবালী ফ্লাওয়ার মিলের পরিচালক আরিফুল ইসলাম এই প্রতিবেদককে বলেন ময়লা নিষ্কাশনের জন্য ড্রেনিজ ব্যবস্থা খুবই বাজে এইদিকে কতৃপক্ষ নজর দেওয়ার দাবি জানান। বিষয়টি বিসিক কতৃপক্ষকে অবগত করলে কর্মকর্তারা জানান বিসিকে বরাদ্দ প্রকল্প থেকে ড্রেনিজ ও অন্যান্য কাজ সম্পাদন করে থাকি বিসিক কর্তৃপক্ষ।

শ্রমিক সংখ্যা

ইন্ডাস্ট্রিয়াল এরিয়ায় নারী ও পুরুষ মিলিয়ে প্রায় বারো শত শ্রমিক কাজ করে। তবে শ্রমিকদের মধ্যে অনেকেই অভিযোগ করেন যে রাতের শিফটে আমরা যারা কাজ করি চলাচলের রাস্তায় লাইটিং ব্যবস্তা না থাকায়, দুর্ভোগে পরতে হয়।

প্রসঙ্গত বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক) শিল্পনগরী কিশোরগঞ্জ ১৯৮৭ সালে ২০.৬০ একর জমি অধিগ্রহণ করে তৎকালীন সরকার ১৯৬.৯৬ কোটি টাকা খরচ করে শিল্পনগরীটি স্থাপন করে।

মানব চেতনা/এমআর

Facebook Comments Box

Comments are closed.

     More News Of This Category