আজ ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

কুষ্টিয়া ১৩ হাজার ৭ শ ৭০ হেক্টর জমিতে আমন ধান উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ৮৯ হাজার ৯শ ৫ মেট্রিক টন

কে এম শাহীন রেজা, কুষ্টিয়া:কুষ্টিয়া জেলা কুমারখালী উপজেলায় চলতি মৌসুমে আমন ধানের চাষ ভালো হয়েছে । আবহাওয়া কিছুটা অনুকূল থাকায় ধান গাছ বেশি ভালো অবস্থায় রয়েছে বলে জানান কৃষকরা । আবহাওয়ার কোন ব্যতিক্রম না ঘটলে ফলন ভালো হবে বলে তারা মনে করেছেন । তবে ধান চাষে একটু খরচ বেশি হওয়ায় ধানের মূল্য আশা করেছেন তারা ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে চলতি আমন মৌসুমে উপজেলায় ১৩ হাজার ৭শ ৭০ হেক্টর জমিতে আমন ধান চাষ করা হয়েছে । তবে কয়েক বার বন্যার কারণে ১০০ হেক্টর জমিতে ধান বন্যার পানিতে নিমজ্জিত রয়েছিল । ফলে বন্যার পানি সরে গেলে আর সেগুলো জমির ধান ভালো থাকলে উৎপাদন ভালো হবে বলে মনে করেন কৃষকরা । তবে তুলনা মূলক ভাবে গত বছর থেকে এবারের ধান গাছের অবস্থা ভালো রয়েছে । এ পর্যন্ত উপজেলার কোন এলাকার জমির ধান গাছে তেমন কোন প্রকার রোগ বালাই দেখা যায়নি । এবস্থা থাকলে একবারে উপজেলায় প্রায় ৮৯ হাজার ৯শ ৫ মেট্রিক টন ধান উৎপাদন হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে এবং উক্ত ধান থেকে ৫৯ হাজার ৬শ৭০ মেট্রিক টন চাউল অর্জিত হবে বলে আশা করেছে ।

উপজেলার যদুবয়রা গ্রামের কৃষক ফারুক হোসেন, কেশবপুর গ্রামের কৃষক আবু সায়েম, জোতমোড় গ্রামের কৃষক জাহিদ হোসেন জানান, এবছর আবহাওয়া কিছুটা ভালো থাকার কারণে রোপন কৃত আমন ধান গাছ সুন্দর ও সতেজ রয়েছে । কিছু দিনের মধ্যে ধান শীর্ষ বের হবে । কিছু এলাকায় পোকা মাকড় থাকলে ও বর্তমান অবস্থা সেগুলো আর নেই শেষ পর্যন্ত এবস্থা থাকলে ধানের ফলন ভালো হবে বলে তারা মনে করেছেন।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ দেবাশীষ কুমার দাস জানান, এ পর্যন্ত রোপন কৃত আমন ধানে কোন রোগ বালাই আক্রমণ করেছে বলে খবর পাওয়া যায়নি ।তবে কিছু এলাকায় থাকলেও আমরা সার্বক্ষণিক কৃষকদের সাথে যোগাযোগ করে ব্যবস্থা গ্রহণের পরামর্শ দিয়েছে এছাড়াও তারা কৃষকদের সাথে নিয়োমিত যোগাযোগ রাখছেন । তবে আমিও বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখেছি ধান গাছ ভাল রয়েছে । এরকম থাকলে ভালো ফলন হবে আরো এতে আমরা আমাদের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে পারব বলে আশা করি ।

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category